মানুষের জীবন যেন এক রঙ্গের ভূবন

কেউ বা হাসে কেউ বা কাঁদে এইতো জীবন।

কেউ শিকার করে কেউ হচ্ছে শিকারী

কেউ বা রঙ্গে নাচে কেউ হচ্ছে ভিখারি।

আজও রাস্তার ধারে ফুটপাতে জীর্ন শিশু

বাস করিতেছে তাঁরা না পেয়ে ভাত এক মুঠো ।

আজও জন্ম দিতেছে সন্তান জীর্ন পরিবেশে

চিকিৎসা সেবা পাচ্ছেনা তাঁরা স্বাধীন এই দেশে ।

পেটের তারনায় তাঁরা কাজ করিতেছে ঝুকিতে

আগুনে পুরছে শরীর ভস্ব চিতাতে ।

কেউ বা টাকার লোভে জ্বালিয়ে দিচ্ছে কারখানা

কে পুরল কে মরল হৃদয়ে আসেনা সেই ভাবনা ।

কত শিশুর হাসি কত মায়ের কুল হচ্ছে খালি

কেউ বা আড়ালে বসে নাড়ছে কাঠি দিচ্ছে হাততালি ।

কত মায়ের মুখ পুড়ে হচ্ছে অচীন

মাটি দিচ্ছে তাদের না পেয়ে স্বজন।

মরলে কত টাকা কত পয়সা নিয়ে আসে কতজন

পূর্ব যদি ব্যবস্থা নিত, নাও হতে পারত এমন ।

কাব্যগ্রন্থঃ মায়ের ভাষা

৩১-০৩-২০১৩

লালবাগ-ঢাকা

Leave a Reply

Your email address will not be published.